মা সম্পর্কে ২০ টি বাক্য | মা সম্পর্কে কিছু কথা

14 Aug, 2023
মা সম্পর্কে ২০ টি বাক্য | মা সম্পর্কে কিছু কথা
1.2/5 - (6 votes)

মা সম্পর্কে ৫ টি বাক্য বাংলায় – মা সম্পর্কে ২০ টি বাক্য – মা সম্পর্কে কিছু কথা – যার গর্ভ থেকে আমাদের সকলের পৃথিবীতে আগমন হয়েছে তিনি হলেন মা। তাকে ছাড়া পৃথিবীর আলো দেখা অসম্ভব। মায়ের কোল থেকে আমরা সময়ের সাথে সাথে বেড়ে উঠি এবং সমাজের বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে পরিচিত হই।

আমাদের সমাজে বিভিন্ন ধরনের মানুষ বাস করে। পৃথিবীতে জন্ম গ্রহণের পর থেকে সমাজের বিভিন্ন মানুষের সঙ্গে আমাদের বিভিন্ন ধরনের সম্পর্ক স্থাপন হয়ে থাকে, তার মধ্যে মা ও সন্তানের সম্পর্ক অত্যন্ত মধুর এবং অন্যতম।

মা সম্পর্কে যত কিছুই লিখি অথবা বলি না কেন তা কখনোই বলে শেষ করা যাবে না। মা শব্দটি শুনতে ছোট হলেও জীবনে এর কার্যকারিতা ও অবদান এর সীমা ও শেষ নেই। মা এমন একজন ব্যক্তি যিনি তার দুহাতের অবদানে

ছোটকাল থেকে কষ্ট করে আমাদের লালন পালন করেন এবং সেবা যত্ন করেন। পৃথিবীর কোন কিছুর বুঝে ওঠার আগ পর্যন্ত মায়ের অবদান অপরিসীম।

মা এমন একজন মানুষ যিনি ঘরে ও বাহিরে সকল ধরনের দায়িত্ব-কর্তব্য সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পূর্ণ করার চেষ্টা করেন। ইসলামিক দৃষ্টিতে সকল মায়েদের খুব উচ্চ পর্যায়ের সম্মান ও মর্যাদা দান করা হয়েছে।

Table of Contents

মা সম্পর্কে ২০ টি বাক্য | মা সম্পর্কে কিছু কথা আলোচনা করা হলো-

১/ আমার মা আমার সবচেয়ে প্রিয়

মা সম্পর্কে ২০ টি বাক্য বা মা সম্পর্কে কিছু কথা আলোচনা করতে গেলে এর চেয়ে প্রধান বাক্য আর কিছুই হতে পারে না। পৃথিবীর সকল সন্তানদের কাছেই সকল মায়েরা হয়তো সবচেয়ে প্রিয় মানুষ।

See also  স্যাটেলাইট কিভাবে কাজ করে

যদি কাউকে জিজ্ঞেস করা হয় জীবনে তার সবচেয়ে প্রিয় ব্যক্তিটি কে হয়তো সে প্রথমেই জবাবে বলবে তার মা। এমন অনেক সন্তান রয়েছে যাদের কাছে পিতার চেয়ে মা খুবই প্রিয় ব্যক্তি।

একটি সন্তান মায়ের কাছে যেভাবে তার মনের ভাব প্রকাশ করতে পারে অন্য কারো কাছে সেভাবে মনোভাব প্রকাশ করা সম্ভব হয়ে ওঠে না। সুতরাং বলা যায় সমাজে সকল প্রিয় ব্যক্তিদের মধ্যে মায়ের অবদান অপরিসীম। আমার জীবনে আমার মায়ের চেয়ে প্রিয় ব্যক্তি কেউ হতে পারে না।

২/তিনি আমাদের সব সময় খুবই স্নেহ ও আদর করেন

মায়ের পক্ষ থেকে আদর, যত্ন,স্নেহ পাওয়া মা সম্পর্কে ৫ টি বাক্য বাংলায় – মা সম্পর্কে কিছু কথা এর মধ্যে কার্যকর বাক্য। পৃথিবীর প্রতিটি মায়ের কাছেই তার সন্তান খুব আদর স্নেহ ও ভালোবাসার পাত্র হয়ে থাকে।

মা তার সন্তানের চেয়ে কাউকে বেশি আদর স্নেহ ও ভালবাসা প্রদান করতে পারে না। পৃথিবীর প্রতিটি সন্তান তার মায়ের পক্ষ থেকে সবচেয়ে বেশি আদর যত্ন স্নেহ আবদার বা আশা করে থাকে। পৃথিবীতে মায়ের আদর যত্ন স্নেহের সাথে কারো আদর যত্ন স্নেহের তুলনা হয় না।

৩/মা সব সময় খুব ভোরে ঘুম থেকে উঠেন

প্রতিদিন সকাল ভোরে ঘুম থেকে ওঠা মা সম্পর্কে ১৫ টি বাক্য এর সবচেয়ে বিশেষ বাক্য। পরিবারের প্রতিটি সদস্যরা সকালে যেকোনো সময় ঘুম থেকে উঠলেও মায়েদের প্রধান দায়িত্ব থাকে তারা ভোরবেলা সকালে ঘুম থেকে উঠে ঘরের যাবতীয় কাজকর্ম সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন করবে। ভোরবেলা ঘুম থেকে উঠার পর সারাদিন একটি সংসারে কি কি ধরনের কাজকর্ম সম্পন্ন করলে

See also  কত বছর বয়স থেকে কৃমির ঔষধ খাওয়ানো যায়

পরিবারের সকলের জন্য উপকার হবে সে বিষয়ে তারা লক্ষ্য রাখেন। এমন অনেক সময় আছে মায়েরা রাতের ঘুম পরিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করতে পারে না কিন্তু তারা ভোরবেলা ঘুম থেকে উঠে তাদের দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন থাকে ।

৪/ঘুম থেকে উঠে আমাদেরকে প্রতিদিন সকালে নাস্তা তৈরি করে দেন

মা সম্পর্কে ১৫ টি বাক্য এর মধ্যে এটি দায়িত্ব সম্পন্ন বাক্যের মধ্যে পড়ে। পরিবারের প্রতিটি সদস্যগন মায়ের উপর এতটাই নির্ভরশীল যে সকালে উঠে মা নাস্তা তৈরি না করলে পরিবারের সকলকে সকালের নাস্তা না খেয়ে থাকতে হবে।

৫/স্কুলে যাওয়ার সময় আমাদের বই-পত্র জামা কাপড় গুছিয়ে দেন

মা সম্পর্কে ১৫ টি বাক্য এর মধ্যে এটি অন্যতম। প্রতিদিন স্কুলে যাওয়ার সময় আমাদের মা আমাদের সকল ভাই-বোনদের বইপত্র ও ইউনিফর্ম গুছিয়ে দেন যেন আমাদের সময় অপচয় না হয় এবং আমরা সময় মত স্কুলে পৌঁছাতে পারি।

স্কুল থেকে বিকেলে বাসায় ফেরার পরেও মা আমাদের স্কুলের ইউনিফর্ম যথাযথ জায়গায় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করতে দিয়ে থাকেন এবং বইপত্র গুলো টেবিলে সাজিয়ে রাখেন যেন সন্ধ্যায় সময়মতো পড়তে বসার পর কোন কিছু খুঁজতে আমাদের সমস্যা না হয়।

৬/আমার মা খুব চমৎকার রান্না করেন

মায়ের হাতের চমৎকার রান্না মা সম্পর্কে ১৫ টি বাক্য এর সবচেয়ে চমৎকার ব্যাপার। আমাদের পরিবারের সকল সদস্যের মধ্যে মায়ের হাতের রান্না খুব মজাদার ও চমৎকার হয় যার কারনে পরিবারের সকল সদস্যরা মায়ের হাতের রান্না খেয়ে খুবই প্রশংসা করে থাকেন। যা মায়ের জন্য গর্বের বিষয়।

৭/তিনি আমাদের জন্য নানা রকম খাবার তৈরি করেন

মা সম্পর্কে ১৫ টি বাক্য এর সবচেয়ে মজাদার ব্যাপার হলো মায়ের হাতের মজাদার ও স্পেশাল খাবার খেতে পারা। বিশেষ কোন ছুটির দিন বা বন্ধের দিন অথবা উৎসবমুখর দিনগুলোতে মা এমন কিছু খাবারের আইটেম আয়োজন করে থাকেন যা পরিবারের সকলে খেয়ে আনন্দ পেয়ে থাকে।

মায়ের হাতের হরেক রকমের খাবার উপভোগ করেও পরিবারের সদস্যদের সাথে আনন্দমুখর সময় কাটানো যায়।

৮/মা খুব লক্ষ্মী তিনি সব সময় আমাদেরকে লেখাপড়ায় সাহায্য করেন

সন্তানদের লেখাপড়ায় সাহায্য করা মা সম্পর্কে ১৫ টি বাক্য এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ বাক্য। প্রতিটি সন্তানকে লেখাপড়ায় সাহায্য করে সন্তানকে সুশিক্ষিত ভাবে গড়ে তোলা প্রতিটি পিতা মাতার দায়িত্ব।

See also  ২০ টি তরল পদার্থের নাম জেনে রাখুন

কিন্তু পিতারা সারাক্ষণ অফিসের কাজে বাহিরে থাকলেও মায়েরা ঘরের কাজের পাশাপাশি তখন তারা সন্তানদের লেখাপড়ায় উৎসাহ দিয়ে থাকেন এবং সাহায্য করেন। যার ফলে সন্তানরা পড়ালেখায় মনোযোগী হয়ে উঠতে পারে এবং পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করতে সক্ষম হয়।

৯/মা আমাদেরকে গান গাওয়া ও ছবি আঁকা শেখান

সন্তানদেরকে বিনোদনমূলক কাজকর্মে অংশগ্রহণ করানো মা সম্পর্কে ১৫ টি বাক্য এর এর মধ্যে অন্যতম।

পড়াশোনা ও বিভিন্ন কাজকর্মের পাশাপাশি মায়েরা যখন ছবি আঁকা ও গান শেখানোর কাজে সন্তানদেরকে অংশগ্রহণ করতে উৎসাহিত করে, যার ফলস্বরূপ সন্তানরা একটি আনন্দ মুখর ও বিনোদনমূলক সময় কাটাতে সক্ষম হয়।

১০/তিনি প্রতি রাতে আমাদেরকে ঘুমানোর আগে সুন্দর সুন্দর গল্প শোনান

রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে মা আমাদের বিভিন্ন ধরনের গল্প শোনান যেমন- তার শৈশবকালের গল্প, বা বিনোদনমূলক গল্প শুনান।

এর ফলে আমরা ঘুমানোর পূর্বে মায়ের সাথে একটি বিনোদনমূলক সময় পার করতে পারি।

১১/মা সব সময় আমাদের আত্মীয়স্বজনদের খোঁজ খবর নেন

শিক্ষাজীবনের গল্প নিজের পরিবারের খোঁজখবর ও দায়িত্ব পালন করার পাশাপাশি সকল প্রতিবেশী ও আত্মীয়স্বজনের খবর নেয়া একটি অন্যতম দায়িত্ব।

ছোটবেলা থেকে বর্তমান এই সময় পর্যন্ত মাকে দেখে এসেছি সবসময় মা আত্মীয়-স্বজনদের খোঁজখবর নিয়ে থাকেন। যার কারনে মায়ের সাথে সকল আত্মীয়-স্বজনের সুসম্পর্ক গড়ে থাকে।

১২/তিনি আমাদেরকে সব সময় ভালো হওয়ার ও বড়দের সম্মান করার উপদেশ দেন

প্রতিটি মা চায় তাদের সন্তান সুস্থ ও সুন্দর মনের মানুষ হিসেবে, একজন ভালো ন্যায়বান ও চরিত্রবান মানুষ হিসেবে গড়ে ওঠুক।

আমাদের মা সর্বদা আমাদের সকলকে উপদেশ দিয়ে থাকেন আমরা যেন জীবনে ভাল মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে পারি। আমাদের মা এই উপদেশ সবসময় দিয়ে থাকেন আমরা যেন বড়দের সব সময় সম্মান করতে পারি।

১৩/আমি আমার মাযের জন্য সৃষ্টিকর্তার কাছে মঙ্গল প্রার্থনা করি

মা আমাদের পরিবারের জন্য আশীর্বাদ স্বরূপ। আমরা সর্বদা মায়ের জন্য সৃষ্টিকর্তার নিকট প্রার্থনা করি সৃষ্টিকর্তা যেন তার মনের সকল সৎ আশা পূরণ করে দেন।

১৪/মা আমাদের ধর্মীয় শিক্ষা দিয়ে থাকেন

মা সম্পর্কে ১৫ টি বাক্য এর মধ্যে এটি গুরুত্বপূর্ণ বাক্য। পারিবারিক ও সামাজিক শিক্ষার পাশাপাশি মা আমাদের ধর্ম শিক্ষার প্রতি উৎসাহিত করে থাকেন। যা আমাদের পরকালের জীবনের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

১৫/মা ঘরে ও বাহিরে দুদিকেই সেবার হাত বাড়িয়ে দেয়

আমাদের সমাজে এমন কিছু মা আছেন যারা ঘর সংসারের কাজ করার পাশাপাশি বাহিরে কাজে কর্মরত আছেন। তারা যেমন ঘরের কাজকে গুরুত্ব দেন তেমনি বাহিরের কাজকেও সমানভাবে গুরুত্ব দিয়ে থাকেন।

তারা মা হিসেবে এতটাই সেরা ঘরের প্রতিটি বৃদ্ধ সদস্য হতে শুরু করে ছোট বড় সকলকে যেমন সেবা দিয়ে যাচ্ছেন তেমনি বাহিরে যেখানে কাজ করছেন সেখানেও সমান সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। যা সকলে করতে পারে না।

আর্টিকেলের শেষকথাঃ মা সম্পর্কে ৫ টি বাক্য বাংলায় – মা সম্পর্কে ২০ টি বাক্য – মা সম্পর্কে কিছু কথা

বন্ধুরা আমরা এতক্ষন জেনে নিলাম মা সম্পর্কে ৫ টি বাক্য বাংলায় – মা সম্পর্কে ২০ টি বাক্য – মা সম্পর্কে কিছু কথা – । আশা করি আমাদের আজকের এই আর্টিকেল টি আপনাদের ভালো লেগেছে। যদি ভালো লাগে তাহলে এখনি বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করে দিন।

Rk Raihan

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *